আপনার ব্যবহৃত প্যান্টি-ব্রা’র মেয়াদ জেনে নিন
গ্রীষ্মকালীন দেশ হিসেবে আমাদের এখানে গরম একটু বেশিই পড়ে। তাই এখানকার মানুষের শরীরে ঘাম হয় বেশি। ফ্যানের বাতাস থেকে দূরে সরলেই ফোঁটা ফোঁটা করে ঘাম জমতে শুরু করে সারা শরীরে। কিন্তু যে অঙ্গ সর্বক্ষণ ঢাকা থাকে, তার অবস্থা একবার ভাবুন! গরম ও ঘামে জীবাণু সংক্রমণের সম্ভাবনা থেকেই যায়। মহিলাদের ক্ষেত্রে এই সমস্যা আরও বেশি। একেতো সারাক্ষণ অন্তর্বাস পরে থাকতে হয়। তার উপর মাসের ওই বিশেষ দিনগুলোয় আরও সমস্যা দেখা দেয়। তাই বাড়তি যত্ন প্রয়োজন।
সবার প্রথমে নজর দিতে হবে অন্তর্বাসের দিকে। অন্তর্বাস পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন না হলে সমস্যা থেকে কোনদিন মুক্তি মিলবে না। অপরিষ্কার প্যান্টি গোপনাঙ্গে ব্যাক্টেরিয়াল ইনফেনশনের কারণ। গোপনাঙ্গ নিয়মিত পরিষ্কার না করলে সমস্যা আরও বাড়তে পারে।
বিশেষজ্ঞরা বলছেন, একটি প্যান্টি তিন মাসের বেশি ব্যবহার করা উচিত না। যে প্যান্টি পরে বাইরে সময় কাটায় মহিলারা, বাড়ি ফিরে তা বদলে ফেলা প্রয়োজন। হাত-পা, মুখ ধোয়ার মতো গোপনাঙ্গ পরিষ্কার করে পরিষ্কার ধোয়া অন্তর্বাস পরা সবচেয়ে উচিত। শুধু তাই নয়, রাতে ঘুমানোর সময় প্যান্টি পরতে বারণ করেন বিশেষজ্ঞরা। না ধুয়ে প্যান্টি পরলে তা থেকে ইনফেকশন হওয়ার সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি।
ব্রায়ের ক্ষেত্রেও তাই। বিশেষজ্ঞদের মতে একটি ব্রা তিনমাসের বেশি পরা উচিত নয়। ব্রা টি নষ্ট না হলেও তিন মাস পর বদলানো উচিত।ব্রা থেকে নানা সমস্যা অনেক সময় দেখা দেয় তা হওয়ার সম্ভাবনা কমে যায়। তাছাড়া বেস্ট ক্যান্সার প্রতিরোধের জন্য উপরে উল্লেখিত প্রত্যেকটি বিষয় খেয়াল রাখা জরুরি।
তাহলে জেনে নিলেন ব্রা সংক্রান্ত নানা তথ্য। নিয়মিত পরিষ্কার ব্রা পরুন, তিনমাস অন্তর ব্রা বদলান। দেখবেন সমস্যা থেকে দূরে আছেন। আর শেষ যা বলার তা হলও, যদি রাতে ঘুমের সময় ব্রা পরে ঘুমানোর অভ্যাস থাকে তাহলে তা আজ থেকেই ছাড়ুন।
রোজ ব্রা পরিষ্কার রাখা উচিত। সেক্ষেত্রে ভালো করে কিছুক্ষণ ঠাণ্ডা জলে রেখে দিয়ে ধুয়ে নেওয়া যেতে পারে। সপ্তাহে এক দিন হালকা ডিটারজেন্ট দিয়ে ধুয়ে ভালো করে শুকিয়ে নিতে হবে।

তথ্য: সংগৃহীত

This Product is originally from আপনার ব্যবহৃত প্যান্টি-ব্রা’র মেয়াদ জেনে নিন and written by probal